সেই পাঠাও চালককে বাইক উপহার দেবেন প্রকৌশলী নাসির

0

ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ নাসির উদ্দিন ও পাঠাও চালক শওকত আলম ।

রাস্তায় বারবার ট্রাফিক পুলিশের মামলার প্রতিবাদে আজ (সোমবার) সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটের দিকে রাজধানীর বাড্ডা লিংক রোডে পুলিশের সামনে শওকত আলম সোহেল নামে এক বাইকার নিজেই তার মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এবার দেশব্যাপী আলোচিত পাঠাও চালক শওকত আলম সোহেলকে মোটর সাইকেল উপহার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন একজন প্রকৌশলী।

তিনি হলেন আলহাজ্ব শামসুল হক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ নাসির উদ্দিন। রাত সাড়ে ৯টার দিকে তিনি একটি গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ইঞ্জনিয়ার মুহাম্মদ নাসির উদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, আমাদের ফাউন্ডেশনের একটি প্রজেক্ট রয়েছে কর্জা হাসানা বা বিনা সুদে ঋণ বিতরণ। এজন্য আমরা বিভিন্ন পণ্য সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের উদ্যোক্তাদের দিই। পরে তারা নিজেদের সুবিধামত তা কিস্তিতে পরিশোধ করেন। তবে ওই ব্যক্তির ভিডিও দেখে আমি বুঝেছি যে, আসলে তিনি খুবই হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন। এজন্য আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, তার ওই কর্জে হাসানা আমি নিজের পক্ষ থেকে দিয়ে দেব। আর ওনাকে উপহার হিসেবে একটি মোটরসাইকেল দিয়ে দেব।
প্রসঙ্গত, পাঠাও চালক শওকত আলম সোহেলর বাড়ি কেরানীগঞ্জে। করোনা সংক্রমণ শুরুর আগে তিনি স্যানিটারি সামগ্রীর ব্যবসা করতেন। এতে তার লোকসান হয়। জীবিকা নির্বাহে শওকত দুই মাস ধরে বাইকে যাত্রী পরিবহন করতেন। তিনি অ্যাপভিত্তিক রাইড সেবা উবার ব্যবহার করতেন।

কয়েক দিন আগে পল্টনে ট্রাফিক আইন অমান্য করায় একটি মামলা হয় শওকতের নামে। এ মামলার টাকা পরিশোধ করার পর সকালে আবার মামলা দিতে যাচ্ছিলেন বাড্ডা এলাকার দায়িত্বে থাকা ট্রাফিক সার্জেন্ট। তখন ক্ষুব্ধ হয়ে বাইকের ট্যাংকি থেকে তেল বের করে তাতে আগুন ধরিয়ে দেন শওকত।

Leave A Reply

Your email address will not be published.